সোমবার ৩০ জানুয়ারী ২০২৩
      Beta

অবশেষে ইউক্রেনে অত্যাধুনিক ট্যাঙ্ক পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশের সময় : বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ ০৩:৫১:০০ অপরাহ্ন | বিশ্ব

বেশ কয়েকমাস ধরে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি সিদ্ধান্তে আসতে না পারায় ইউক্রেনে ট্যাঙ্ক পাঠানোর বিষয়টি ঝুলে ছিল। তবে  নানা দোলাচলের পর অবশেষে   ইউক্রেনে ট্যাঙ্ক পাঠানোর পরিকল্পনা নিয়েছে উত্তর আটলান্টিক সামরিক নিরাপত্তা জোট-ন্যাটোর  অন্যতম এই দুই সদস্য রাষ্ট্র।

বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সরকার ইউক্রেনে অন্তত ৩০টি এম১ আব্রাম ট্যাঙ্ক পাঠাচ্ছে।  অন্যদিকে, ইউক্রেনে ১৪টি লেপার্ড-২ ট্যাঙ্ক পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎজ।

যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির কাছ ট্যাঙ্ক পাওয়ার খবরে সন্তোষ জানিয়েছে প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সরকার। কিয়েভ মনে করে, এই ধরনের সামরিক সহায়তা রাশিয়ানদের দখলকৃত এলাকা ফিরিয়ে নিতে সাহায্য করবে। 

তবে এমন খবরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত এটিকে যুদ্ধক্ষেত্রে আরেকটি বড় ধরণের উস্কানি বলে মন্তব্য করেছেন।

লেপার্ড-২ ট্যাংককে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ট্যাংকের মডেলের মধ্যে একটি ধরা হয়। এ কারণেই রাশিয়ার নতুন আক্রমণ ঠেকাতে লেপার্ড-২ ট্যাংক চাইছে ইউক্রেন। 

ইউক্রেনে যেসব অস্ত্র রয়েছে তার বেশির ভাগই সোভিয়েত ইউনিয়ন বা তার পরবর্তী সময়ের। এই সংকট থেকে উত্তরণেই যুদ্ধে অন্তত ৩০০ ট্যাংক প্রয়োজন বলেও জানিয়েছে  ইউক্রেন। ৫০০ কিমি. পর্যন্ত দূরের লক্ষ্যবস্তুতে অনায়াসে আঘাত করার ক্ষমতা রয়েছে লেপার্ড-২ ট্যাংক। কর্দমাক্ত-বন্ধুর পথেও সর্বোচ্চ ৬৮ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। প্রধান অস্ত্র হিসেবে সজ্জিত ১২০ মিমি. মসৃণ বোর গান। দুটি সমাক্ষীয় হালকা মেশিনগান রয়েছে এতে।

লেপার্ড-২ ট্যাংক হলো বিশ্বের অন্যতম প্রথমসারির যুদ্ধট্যাংক। জার্মানির সেনাবাহিনী এবং অনেক ইউরোপীয় দেশের সামরিক বাহিনী এ ট্যাংক ব্যবহার করে।