শনিবার ১ অক্টোবর ২০২২
      Beta
অভিযুক্তরা এখন পর্যন্ত গ্রেফতার না হওয়ায় আতঙ্কে ভুগছেন নেটমাধ্যম ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ব্যাপক পরিচিত ওই দুই শিল্পী। ছবি: বাংলাহান্ট ডটকম

‘বাঙালি হয়ে অশ্লীল ভিডিও!’, দুই নারী শিল্পীকে মারধরসহ গরম রডের ছ্যাঁকা

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : সোমবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৪:২৫:০০ অপরাহ্ন | বিনোদন

ইউটিউবে নাচের ভিডিও আপলোড করার জন্য দুই নারী শিল্পীকে মারধর করাসহ তাদের শরীরে গরম লোহার রডের ছ্যাঁকা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়, ওই দুই শিল্পীকে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়েছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের দোপেরিয়া এলাকায় এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে।

আনন্দবাজার, হিন্দুস্তান টাইমসসহ বেশ কয়েকটি ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোদপুর অমরাবতী এলাকায় থাকেন সন্নতি মিত্র এবং শ্রী ভদ্র। অভিনয়ের পাশাপাশি তাঁরা মডেলিংও করেন। ইউটিউব এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই দুই নারী শিল্পীর যথেষ্ট জনপ্রিয়তা রয়েছে। দু’জনেরই একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল আছে এবং সেখানে তাঁরা তাঁদের মিউজিক ভিডিও আপলোড করেন। গত ২ সেপ্টেম্বর ‘রসগোল্লা’ নামের একটি মিউজিক ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করেন সন্নতি ও শ্রী ভদ্র।  গত ১২ সেপ্টেম্বর তাঁরা বাড়ি থেকে দোপেরিয়া মোড়ে এক বান্ধবীর বাড়িতে যাচ্ছিলেন। ওই সময় কয়েকজন দুষ্কৃতী মোটরসাইকেলে করে এসে তাদের পথ আটকায় এবং তাদের বেধড়ক মারধর করে। একই সঙ্গে গরম লোহার রডের ছ্যাঁকা দেয়। ঘটনায় স্থানীয় কয়েকজন যুবক জড়িত রয়েছে বলে রহড়া থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন ওই দুই তরুণী।

একাধিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, অভিযুক্তরা এখন পর্যন্ত গ্রেফতার না হওয়ায় আতঙ্কে ভুগছেন নেটমাধ্যম ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ব্যাপক পরিচিত ওই দুই শিল্পী।

সন্নতি মিত্র গণমাধ্যমকে বলেন, “দুষ্কৃতীরা বলছিল বাঙালির সন্তান হয়ে কেন এমন অশ্লীল ভিডিও বানানো হয়েছে। তাহলে কি ইউটিউবারদের স্বাধীনভাবে কাজ করার কোনও অধিকার নেই? এখন সোশ্যাল মিডিয়া ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মে যে সমস্ত উঠতি শিল্পীরা তাঁদের প্রতিভা দেখানোর চেষ্টা করছেন, তাঁদেরই দমিয়ে দেওয়া হচ্ছে। নতুন শিল্পীদের উঠতে না দেওয়ার জন্য পরিকল্পনা করে এমন হামলা চালানো হয়েছে। পুলিস নিরাপত্তা না দিলে আমরা বাড়ি থেকে বেরোতেও ভয় পাচ্ছি।”