শনিবার ১ অক্টোবর ২০২২
      Beta
বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের গোলকিপার রূপনা চাকমার বাড়িতে রাঙামাটির জেলাপ্রশাসক। ছবি: সংগৃহীত

সাফ ফুটবলজয়ী রূপনা-ঋতুপর্ণার বাড়িতে গেলেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক

দ্য রিপোর্ট ডেস্ক
প্রকাশের সময় : বুধবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০১:১৩:০০ পূর্বাহ্ন | বাংলাদেশ

নেপালে অনুষ্ঠিত সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে খেলা রাঙ্গামাটির দুই ফুটবলার রিতুপর্ণা চাকমা ও রুপনা চাকমার বাড়িতে গেলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এ সময় তিনি এ দুই খেলেয়াড়ের পরিবারকে দেড় লাখ ক’রে মোট তিন লাখ টাকা পুরস্কার দেন। এ ছাড়া তিনি মিষ্টিও উপহার দেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে এসব তথ্য জানা যায়।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নানিয়ারচর উপজেলায় রুপনা চাকমার বাসায় ও পরে কাউখালী উপজেলায় ঋতুপর্ণা চাকমার বাসায় যান জেলা প্রশাসক। এ সময় প্রতিবেশীরাও ভীড় জমান। এ সময় জেলা প্রশাসক এই দুই খেলোয়াড়ের বাড়িতে যাওয়ার সড়কগুলো সংস্কারের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনকে নির্দেশনা দেন।

rangamati-rupna

নানিয়ারচর উপজেলার ঘিলাছড়ির ভূঁইয়াদম এলাকায় গোলকিপার রূপনা চাকমার বাড়ি। সেখানে যাওয়ার পর জেলা প্রশাসকের সাথে থাকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বজলুর রহমানকে রূপনার জরাজীর্ণ ঘরটির স্থানে নতুন ঘর নির্মাণে যা যা করা দরকার তা করা এবং তাঁর বাড়ি যাওয়ার সড়কটি তৈরি করে দেওয়ার নির্দেশনা দেন।

রূপনার বাড়ি থেকে বেরিয়ে জেলা প্রশাসক ঘাগড়া ইউনিয়নের মগাছড়িতে আরেক জাতীয় তারকা ঋতুপর্ণা চাকমার বাড়িতেও যান। সেখানে পৌঁছেও টাকার চেক, মিষ্টি ও উপহার তুলে দেওয়ার পাশাপাশি বাড়িতে যাওয়ার সড়কটি নির্মাণ করে দেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

জেলা প্রশাসক এ সময় বলেন, রূপনা ও ঋতুপর্ণা আজ পুরো জাতির গর্ব। আমরা তাঁদের নিয়ে গর্বিত। তাঁদের পরিবারের পাশে আমরা সর্বোতভাবেই থাকার চেষ্টা করব।

এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাইফুল ইসলাম, মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নিরূপা দেওয়ান, সাবেক জাতীয় ফুটবলার বরুন দেওয়ান, জেলা স্কাউটের নেতা নুরুল আবছার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।